মনোযোগ নিয়ে পড়ুন - আপনারা যখন কোনো অপশনে ক্লিক করবেন একটি অ্যাড আসবে, তখন মোবাইল এর ব্যাক বাটনটির উপর ক্লিক করে আবার পুনরায় দ্বিতীয় (2) বার সেই অপশনটির উপর ক্লিক করলেই আপনার কাঙ্ক্ষিত অ্যাপটির ডাউলোড লিংক পেয়ে যাবেন।
Top 5 Smallest Game in The World | পৃথিবীর সেরা পাঁচটি ছোট গেম - 1122 - GameVai.Com - New Gaming News Platform

Top 5 Smallest Game in The World | পৃথিবীর সেরা পাঁচটি ছোট গেম - 1122

আজকের পোস্টটি গেমার দের জন্য অনেক ইম্পরট্যান্ট। বছরের পর বছর আমরা গেম খেলে আসছি। যে গেমগুলোর সাইজ ১ জিবি ,২ জিবি, ৩ জিবি, চার জিবি, ১০ জিবি, বিশ জিবি এমনকি ৫০ জিবির ও গেম আছে। আমরা কি জানি! কেবির ও গেম আছে। KB হচ্ছে এম বি থেকেও কম। এমবি হচ্ছে মেগাবাইট আর কেবি হচ্ছে কিলোবাইট। আমরা জানি এক এমবি সমান ১০০০ কিলোবাইট। আর এই কয়েক কেবি নিয়ে কিছু কিছু গেম আছে। যা আমরা অনেকেই জানিনা। আর সবচেয়ে ছোট পাঁচটি গেম নিয়ে আজকের পোস্টটি। যে গেমগুলোর সাইজ কয়েক কেবি।





আজকে আমি তোমাদেরকে যে গেম গুলো দেখাবো এই গেমগুলো তোমরা যেকোনো রামের ডিভাইসে খেলতে পারবা।

আজকের পোষ্টের টপিক পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট গেম কোনটি। এই প্রশ্নের উত্তর ৯৯% গেমাররাই জানে না। তো তুমিও যদি না জেনে থাকো তাহলে আজকে পোস্টটি তোমার জন্য।


বর্তমানে মোবাইলের জন্য অনেক বড় বড় গেম তৈরি হচ্ছে। সেই গেমগুলোর সাইজ ৫ জিবি, ১০ জিবি, ১৫ জিবি ,৫০ জিবি পর্যন্ত আছে। পিসি গেম ৫০ জিবির মতো আছে। কিন্তু মোবাইল গেম নাই। কিন্তু মোবাইল গেমও অনেক জিবির আছে। যেমন ৫ জিবি ,১০ জিবি ,১৫ জিবি। আর এই গেম গুলো সম্পর্কে আমরা অনেকেই জানি। কারণ গেমটিতে অসাধারণ গ্রাফিক্স রয়েছে। কিন্তু আমরা জানি না পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট গেম কোনটি।

পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট গেমের মধ্যে এটি হচ্ছে ৫ নাম্বার গেম। যার নাম স্নেক থ্রিডি।



আমরা অনেকেই ছোটবেলায় নকিয়া ফোনে সাপের এই গেমটি খেলতাম। যে গেমটির নাম ছিল স্নেক। এই গেমটা ছোটবেলায় খেলে অনেক সময় কাটিয়েছি আমরা। তোমাদের মধ্যে কে কে এই গেমটি খেলেছ অবশ্য কমেন্টের মাধ্যমে জানাবা।

তো এই গেমে একটি সাপ থাকে। এবং একটি ডট থাকে বা খাবার থাকে তো এইগুলো খাবার খেলে, সাপ অটোমেটিক বড় হয়। আর এভাবেই গেমটি স্কোর বাড়তো। তো এই গেমটি নোকিয়া ফোনের সেই গেমটির মতো। ঠিক সেম ভাবে খাবার খেয়ে স্কোর বাড়াইতে হয়। তবে গেমটা কিছুটা হলেও আপডেট রয়েছে। কারণ এই গেমটি থ্রিডি। আর এই গেমটার সাইজ মাত্র ৫৯ কেবি। আর হ্যাঁ এই গেমটা কই থেকে ডাউনলোড করা হবে তা বলে দেয়া হবে এই পোস্টের মাধ্যমে।


পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট গেম এর মধ্যে এটি হচ্ছে চার নাম্বার গেম। গেমটির নাম স্ট্যাক টুডী।



NOKIA মোবাইলের পরে বাংলাদেশে কিছু মোবাইলে আসছিল। আর সে মোবাইল গুলোতে এই টাইপ গেম ছিল। তখন মূলত এই টাইপ গেম অনেক জনপ্রিয় ছিল। কারণ তখনকার সময়ে এখনকার মত ফ্রি ফায়ার ,পাবজি, জিটিএ ফাইভ এই টাইপ গেম ছিল না। তখন এই গেমগুলোই ফেমাস ছিল। আর ভালো ভালো গেম খেলতে চাইলে ভালো মানের ডিভাইস লাগতো। আর ভালো মানের ডিভাইসের প্রাইস ছিল অনেক। যেমন পঞ্চাশ হাজার থেকে ১ লাখ পর্যন্ত। সো এই মোবাইলগুলো খুব কম মানুষের হাতেই ছিল। আর যেই মোবাইলের পপুলারিটি খুব বেশি ছিল, সেই মোবাইলে এই গেমগুলো ছিল। তো এই গেমের রুলস হচ্ছে, বড় বড় লাইন আসত সেই লাইনগুলো একত্র করে স্কোর বাড়ানো লাগতো। এই গেমের সাইজ হচ্ছে মাত্র ৬৫ কেবি। তো তোমরা যদি গেমটি ছোটবেলায় খেলে থাকো। তাহলে গেমটি ডাউনলোড করে আবার খেলতে পারবা। কি করে তোমরা গেমটি ডাউনলোড করবা সেটি আমি তোমাদেরকে বলে দিব।


পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট গেম এর মধ্যে এটি হচ্ছে তিন নাম্বার গেম। যার নাম চেস ট্রেনার।



দাবা গেম সম্পর্কে কে না জানে! এই গেমটা এখনো অনেক ফেমাস। শুধু ফেমাসি না এই গেমটা নিয়ে এখনো ওয়ার্ল্ড কাপ হয়। অনেকে দাবা গেম সম্পর্কে জানলেও, অনেকেই গেমটা খেলতে পারেনা। দাবা গেম অনেক কঠিন কারণ এই গেমটা বুদ্ধি দিয়ে খেলতে হয়। তোমাদের মধ্যে কে কে গেমটি খেলতে পারো কমেন্টের মাধ্যমে জানিয়ে দাও।

বাস্তবের সঙ্গে মিল রেখে গেমটি তৈরি করা হয়েছে। গেমটির সাইজ মাত্র ৪৯ কেবি।



পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট গেমের মধ্যে এটি হচ্ছে দুই নাম্বার গেম। যার নাম টাচ রিফ্লেক্স।





এই গেমটির রুলস হচ্ছে, স্কিনের ওপর কিছু বাবর দেওয়া হবে। আর এইটা তোমাকে টাইমলি টাচ করে ব্লাস্ট করতে হবে। আর এভাবে যত তুমি টাচ করবা তোমার স্কোর ততো বাড়বে। আর এই গেমটা তোমরা বন্ধুদের সাথেও খেলতে পারবা। আর এই গেমটার সাইজ মাত্র ৩৭ কেবি।


এবং নাম্বার ওয়ানে যে গেমটি আছে, গেমটি সম্পর্কে জানলে তোমাদের মাথা নষ্ট হয়ে যাবে। কারণ গেমটি অন্যরকম একটি গেম।


পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট গেমের মধ্যে এটি হচ্ছে এক নাম্বার গেম। গেমটির নাম ট্রাপ বল।



এই গেমটা ছোটবেলায় আমরা অনেকেই খেলেছি। এবং অনেকের ছোটবেলার ফেভারিট গেম এইটা ছিল। এই গেমে একটা বা দুইটা বল থাকে। এই বল গুলোর মাঝখানে ঘর বানাতে হয়। আর ঘরের মধ্যে বল গুলোকে আটকায় রাখতে হয়। আর এভাবেই বল গুলোকে ট্রাপে ফেলতে হয়। ট্রাপে ফেলার সময় বল গুলো যদি লাইনের সাথে টাচ হয়, তাহলেই গেম অভার হয়ে যাবে। এভাবেই ফাঁদে ফেলতে ফেলতে মূলত লেভেল কমপ্লিট করতে হয়। এভাবে আস্তে আস্তে মূলত বলের সংখ্যা বাড়ে এবং লেভেল ও হার্ড হয়ে যায়। তো তোমরা যখন ছোটবেলায় গেমটা খেলতা, কত লেভেল পর্যন্ত গেছো অবশ্যই কমেন্ট করে জানিয়ে দিও। এবং তোমাদের মধ্যে কারা কারা গেমটা খেলেছো কমেন্টের মাধ্যমে জানাবা। এবং এটাও বলবা এই পাঁচটি গেম এর মধ্যে কোন কোন গেম তোমরা খেলেছ।


To play the smallest game for Android, follow these steps:

Search and Download: Open the Google Play Store on your Android device and search for "smallest game" in the search bar. Multiple options will appear, each one claiming to be the smallest game. Pick one that piques your interest.

Install game: Touch the selected game to open its Play Store page. Please read the description and reviews and check the ratings to make sure it meets your expectations.If you are satisfied, click the "Install" button to download and install the game on your device.

Start the game – After the installation is complete, locate the game icon on your home screen or in the app drawer. Touch the icon to start the game.

Familiarize yourself with the controls - Each game has its own set of controls. The smaller game might have basic controls due to its size limitations.Please refer to the instructions or tutorials at the beginning of the game to understand how to play and navigate.

Pursue Game Objectives - The game has specific objectives or tasks that you must complete. This can be collecting items, solving puzzles, scoring points or winning battles. Pay attention to the in-game instructions and try to complete the objectives to progress further.

Explore Features - Although the game is small, it can still offer various features and gameplay mechanics.Discover different levels, power-ups, game modes or additional features that the game has to offer.

Enjoy Gameplay - Immerse yourself in gameplay and enjoy the experience of the smallest game on your Android device. Take your time to explore and have fun playing.

Share and Compete: If the game offers social or multiplayer features, consider sharing your achievements or compete with friends or other players. This can add an extra layer of excitement and engagement to the game.

Remember that the smallest game may not have the complexity or depth of larger games, but can still offer a fun experience in a compact package. Enjoy the simplicity and have fun playing on your Android device!

এরকম নতুন নতুন গেম এর আপডেট, এবং নতুন-পুরাতন সেরা গেম গুলো পেতে চাইলে অবশ্যই GameVai এই ওয়েবসাইট এর সাথে থাকবা | পোস্টটি কেমন হয়েছে অবশ্যই কমেন্টের মাধ্যমে জানাও | নিচে গেলে দেখতে পাব কমেন্ট করার অপশন আছে | সেখানে কমেন্টের মাধ্যমে তোমার মূল্যবান মতামত দাও

ধন্যবাদ GameVai ওয়েবসাইটের ভিজিটর, ব্লগার এবং ডেভলপারকে |


এ পাঁচটি গেম তোমার যদি খেলতে চাও তাহলে এখানে ক্লিক করো - If you want to play these five games, click here

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url